১৫টি স্যুটকেস ও পরিবার নিয়ে বার্সেলোনায় মেসি!

এবার লিওনেল মেসির বার্সেলোনা ক্লাবে সম্ভাব্য ফেরা নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই চলছে গুঞ্জন। পিএসজির সঙ্গে জুনে চুক্তি শেষ হওয়ার পর নতুন চুক্তি সই না করলে তিনি ফিরবেন বার্সেলোনাতেই এমনটি ভাবা হচ্ছে। এর মধ্যেই গোপনে মেসি বার্সেলোনায় পা রেখেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন স্প্যানিশ সাংবাদিক জেরার্ড রোমেরো। মেসি নাকি বার্সেলোনায় গেছেন ১৫টি স্যুটকেস নিয়ে! খবর স্প্যানিশ গণমাধ্যম মার্কার।

এদিকে আর মাত্র দুি মাস। এরপরই ফ্রি এজেন্টে পরিণত হবেন লিওনেল মেসি। আলাপ আলোচনা হলেও চুক্তির মেয়াদ বৃদ্ধি নিয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি দুই পক্ষই। কিন্তু লিওনেল মেসির বার্সেলোনায় ফেরা নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই গুঞ্জন চলছে। পিএসজিতে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়কের সাথে কথার বনিবনা না হলে বেশকিছু ক্লাবের প্রস্তাবও আছে তার কাছে।

বেশি আলোচনা হচ্ছে মেসির বার্সেলোনায় ফেরার ব্যাপারটি নিয়েই। বার্সাও চাচ্ছে মেসিকে ফেরাতে। বর্তমান কোচ জাভি হার্নান্দেজ খুব করেই চাইছেন সাবেক সতীর্থকে পেতে। এরই মধ্যে গতকাল বার্সেলোনায় পা রেখেছেন মেসি। সাথে নিয়ে গেছেন ১৫টি স্যুটকেস। এ ঘটনার পরই আরও বেড়েছে গুঞ্জনের ডালপালা।

বার্সেলোনার বিমানবন্দর থেকে খানিকটা গা ঢাকা দিয়ে পাড় হয়েছেন মেসি। কিন্তু রহস্যটা বেড়েছে স্যুটকেসের সংখ্যা নিয়ে। ১৫টি লাগেজ নিয়ে বার্সেলোনায় আসাতে তার পিএসজি ছাড়ার আগাম আভাস পাচ্ছেন অনেকে। কিন্তু বাস্তবতা হলো বার্সা ছেড়ে পিএসজিতে পাড়ি দিলেও মেসির পরিবার এখনও নিয়মিত আসা যাওয়া করেন বার্সেলোনার বাড়িতেই। এবারের আগমনও মূলত বার্সেলোনায় নিজ বাড়িতে পরিবার নিয়ে ছুটি কাটানোর জন্যই নিশ্চিত করেছেন এলএমটেন।

সাতবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী আর্জেন্টাইন তারকার সঙ্গে পুনরায় সই করতে আগ্রহী বার্সেলোনা। তবে মহাতারকার সঙ্গে চুক্তি পাকা করতে হলে সবার আগে নিজেদের আর্থিক সমস্যা কাটিয়ে উঠতে হবে কাতালান ক্লাবটিকে। পরবর্তী ট্রান্সফার উইন্ডোতে নতুন ফুটবলার সই করার আগে তাদের অবশ্যই ১৭৮ মিলিয়ন ইউরো জোগাড় করতে হবে।

এল মুন্ডো দেপোর্তিভোর রিপোর্ট অনুযায়ী, বার্সেলোনায় সম্ভাব্য প্রত্যাবর্তনের সঙ্গে মেসির ভ্রমণের কোনো সম্পর্ক নেই। বলা হচ্ছে, মেসির এই সফর বার্সেলোনার উৎসব সেন্ট জর্দির সঙ্গে সম্পর্কিত। মেসি এ উৎসব উপভোগ করতেই ছুটির মেজাজে রয়েছেন। বার্সেলোনা সম্প্রতি মেসির বাবা এবং এজেন্ট জর্জের সঙ্গে কথা বলেছিল।

তিনি বলেন, আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি। মেসি নিজেও জানে বার্সার দরজা তার জন্য সবসময় খোলা। ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড় মেসি। সে বার্সেলোনার ইতিহাসে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। প্রায় দুই যুগের সম্পর্ক ছিন্ন করে ২০২১ সালে বার্সেলোনা ছাড়েন লিওনেল মেসি। শেষ হচ্ছে পিএসজির সাথে মেয়াদও। কোথায় হবে এই ফুটবল জাদুকরের ভবিষ্যৎ ঠিকানা তা জানার অপেক্ষায় গোটা মেসি ভক্ত।