উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধিঃ ইয়াবাসহ ‘মাদক না ছাড়লে পরিণতি কী ভয়াবহ হবে তা আল্লাহ খোদাই জানেন: নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম (বার)। বলেন, দেশ, মেধা ও নতুন প্রজন্মকে বাঁচানোর জন্য এবং ইয়াবাসহ মাদক নিয়ন্ত্রণে সরকার জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছে। যারা আত্মসমর্পণ করবে, সরকার থেকে তাদের আইনি সহায়তা দেওয়া হবে। তিনি বলেন, ‘দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের সময় ২৪ ঘণ্টা জেগে থাকার জন্য সৈনিকদের ইয়াবা ট্যাবলেট খাওয়ানো হতো।

কিন্তু এখন ইয়াবা নেশা হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। যারা ইয়াবা বিক্রি করেন, তারা জানেন না যে এর ভয়াবহতা কত। একটানা তিন বছর ইয়াবা সেবন করলে মেধা থাকবে না। মাদক নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। মাদক থেকে যুবশক্তিকে বাঁচাতে না পারলে আমাদের স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাবে। ইসলামেও মাদকের বিরুদ্ধে বলা আছে। মাদক ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম (বার)। বলেছেন, ‘আপনারা মাদক ছেড়ে দেন, আত্মসমর্পণ করেন। না হলে পুলিশ বাহিনী আপনাকে খুঁজে বের করবে। ইয়াবাসহ মাদক না ছাড়লে পরিণতি কী ভয়াবহ হবে, তা আল্লাহই জানেন।‘ নড়াইলসহ দেশে কারাগারগুলোতে আসামি ধারণ ক্ষমতা ৩৫ হাজার।

কিন্তু বর্তমানে কারাগারগুলোতে ৯০ হাজারের বেশি আসামি রয়েছে। এর মধ্যে অর্ধেকই ইয়াবা মামলার আসামি। ইয়াবার আইন সংশোধন, ইয়াবা আইনের সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা করেছি। সেগুলো আপনারা দেখেছেন। ইয়াবাসহ মাদকের সরবরাহ বন্ধ করতে আমরা শক্তিশালী করেছি। যারা ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসা করে, তাদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত ও নানা ব্যবস্থা নিচ্ছি। একসময় এ এলাকাগুলো অরক্ষিত ছিল। সেই দৃশ্যপট পাল্টে গেছে। কারণ, আমরা পুলিশ বিভাগকে সংগঠিত করেছি। পুলিশ সব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করছে। পুলিশ সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ মোকাবিলা করেছে। এ সময় নড়াইলের ৫ জন মাদক ব্যবসায়ী আত্মসমর্পণ করেন। তাঁরা ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসা ছেড়ে অন্য ব্যবসা করার ঘোষণা দেন। পরে তাঁদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানান নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম (বার)।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সদ্য পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম (পিপিএম), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ শরফুদ্দীন, সহকারি পুলিশ সুপার( সদর) মোঃ জালাল উদ্দিন, সহকারি পুলিশ সুপার (কালিয়া সার্কেল). নড়াইল সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইলিয়াস হোসেন (পিপিএম), নড়াইল জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আশিকুর রহমান, ডিআইও-১ এস এম ইকবাল হোসেন। এ সময় গণমাধ্যমকর্মীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নড়াইল প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি সুলতান মাহমুদ, নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল রায়, সাধারণ সম্পাদক মোঃ হিমেল মোল্যাসহ ক্লাবের সকল সদস্যবৃন্দসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।