ফাহাদ, জবি প্রতিনিধিঃ রাজধানীর গুলিস্তানে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীবাহী বাসে হামলা চালিয়েছে আন্দোলনরত হকাররা। এঘটনায় আহত হয়েছেন এক শিক্ষার্থী।

মঙ্গলবার (০৭ মে) বিকাল ৩টা ৪৫ নাগাদ গুলিস্তানে গোলাপ শাহ্ মাজার অতিক্রমের সময় এলোপাতাড়ি ইট নিক্ষেপে করে হকাররা। এতে ভেঙ্গে যায় চন্দ্রমুখী বাসের ফ্রন্টকাচের কিছু অংশ।

আহত শিক্ষার্থী হলেন ব্যবস্থাপনা বিভাগের ১২ ব্যাচের সাদিপ। তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

বাসে থাকা শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, দুপুর ৩.০০ টায় ক্যাম্পাস থেকে স্ব-স্ব রুটের উদ্দেশ্যে রওনা করে শিক্ষার্থীবাহী বাসগুলো। বাসগুলো গোলাপ শাহ্ মাজার অতিক্রমের সময় বাঁধা দেয় ফুটপথে বসার দাবিতে আন্দোলনরত হকাররা । এসময় শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ করলে বাকবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে হকাররা বাসগুলো ছেড়ে দেয়।

এসময় বাসগুলো নগরভবনের দিকে যাত্রা শুরু করলে পিছোনে থাকা কয়েকটি বাসে এলোপাতাড়ি ইট নিক্ষেপ শুরু করে হকাররা । এসময় ভেঙ্গে যায় ফার্মগেটগামী চন্দ্রমুখী বাসের ফ্রন্টের কিছু অংশ।

চন্দ্রমুখী বাসে থাকে ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মানমুন বলেন, বাস গোলাপশাহ্ মাজারে পৌঁছলে হকরার বাস থামিয়ে দেয়। বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে তারা যেতে দিলেও আমাদের উপর এলোপাথাড়ি ইট নিক্ষেপ করে। চন্দ্রমুখী বাসের ফ্রন্টের কাচের কিছু অংশ ভেঙ্গে গেছে।

আহত শিক্ষার্থী সাদিপ বলেন, আমি অণির্বাণ বাসের দোতালায় বসে ছিলাম। এসময় হঠাৎ একটা ইট এসে আঘাত করে। আমার কান ও ঘাড়ের কিছু অংশ আঘাত পেয়ে কেটে যায়। পরে পিজি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিই।

এবিষয় পরিবহণ প্রশাসক আবদুল্লাহ-আল-মাসুদ বলেন, এরকম কিছু আমি জানি না। এধরণের ফৌজিদারি বিষয়গুলো প্রক্টর জানেন প্রথম। কিন্তু প্রক্টর আমাকে জানাননি।

এবিষয়ে জবি প্রক্টর ড. নূর মোহাম্মদ বিডি২৪রিপোর্টকে বলেন, আমি এবিষয়ে জানি না। অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নিবো।