সাহেব, দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি নারীর ক্ষমতায়নের জন্য সরকার নারীদের ক্ষমতা নিশ্চিত করেছে উল্লেখ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আইন করে নারী নির্যাতনের হাত থেকে নারীদের রক্ষা করেছে। পুরুষের পাশাপাশি নারীরাও এগিয়ে গেছে।

আগামী ১০০ বছরের ডেল্টা প্লান তৈরি করা হয়েছে। প্রত্যেক গ্রামকে শহরের পরিনত করা হবে। এ দেশ আর পিছিয়ে থাকবে না। তিনি বলেন, বয়স্ক ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, বিধবা ভাতাসহ গর্ভের সন্তানদের ভাতা প্রদান করছেন শেখ হাসিনা সরকার। দিনাজপুরে গত ১১ বছরের প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন হয়েছে। সাড়ে ৩ হাজার বেকার যুবকদের কর্মসংস্থান হয়েছে। দিনাজপুর একটি টেন্ডার মুক্ত শহর, চাঁদাবাজ মুক্ত শহর। বাংলার দুখি মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জীবন দিতে প্রস্তুত রয়েছে। শেখ হাসিনাকে ১৯ বার হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। তবুও এ দেশের মানুষের কল্যানে জন্য পিছপা হয়নি। তিনি বলেন, এই বাংলাদেশ এতিমের টাকা আত্মসাৎকারী খালেদা জিয়ার নয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাংলাদেশ। শেখ হাসিনার বাংলাদেশ। জনগনের কল্যানের জন্য জীবন দিতেও প্রস্তুত আছে শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে এ দেশ স্বাধীন না হলে বাংলাদেশকে ভিক্ষুকের ঝুলি নিয়ে বেড়াতে হত, নির্যাতন করা হত। তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে আমাদের মা বোনদের সাবলম্বী করে তুলতে চাই। মা বোনদের সম্মানীত করেছে শেখ হাসিনা।

ভবিষ্যতে ভাতার সংখ্যা বৃদ্ধি করা হবে। ২০৪১ সালের মধ্যে আধুনিক বিশ্বের মত এই বাংলাদেশকে নিয়ে যাতে চায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৩০ নভেম্বর শনিবার হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি দিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদ উপজেলা পরিষদের আয়োজনে হলরুমে ক্ষুদ্র নৃ-তাত্তিক জনগোষ্টীর স্বাস্থ্য ও স্যানিটেশন বিষয়ে সচেতনতামুলক প্রশিক্ষণ কর্মসুচীর উদ্বোধন ও স্টেশন ক্লাব প্রাঙ্গনে জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, দিনাজপুর কর্তৃক আয়োজিত নিবন্ধিত স্বেচ্ছাসেবী মহিলা সংগঠন সমুহের মাঝে ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের অনুদানের চেক বিতরন ও কর্মজীবী ল্যাকটেটিং মাদার সহায়তা তহবিল কর্মসুচীর আওতায় পৌরসভার ১৫০০ জন উপকারভোগীদের মাঝে স্বাস্থ্যসেবা জোরদার করণের লক্ষে মহিলাদের হেল্ধসঢ়;থ ক্যাম্প এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

দিনাজপুর সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফিরুজুল ইসলামের সভাপতিত্বে পৃথক পৃথক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ইমদাদ সরকার, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ডাঃ মোঃ আবু নছর নুরুল ইসলাম চৌধুরী, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান তারিকুন বেগম লাবুন, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর কুমার রায়, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন আরা জোস্না, শহর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ রায়হান কবীর সোহাগ, সাধারন সম্পাদক খালেকুজ্জামান রাজু, দিনাজপুর মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মুর্শেদ আলী খান, দিনাজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য মোঃ আজগার আলী, ইউপি চেয়ারম্যান অসোক কুমার রায়, ইসাহাক চৌধুরী, মমিনুল ইসলাম, সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ওয়াহেদুল আলম আর্টিস্ট, আদিবাসী নেতা ফাবিয়ান মন্ডল, গনেশ টুডু, রুবেল মুর্মু প্রমুখ।

একই দিন দিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে উপজেলা প্রশাসন ও প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের আয়োজনে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিক্ষার্থীদের মাঝে এ্যাসিসটিভ ডিভাইস (হুইল চেয়ার ও চশমা) বিতরণ করেন।