বাড়ি আইটি বিশ্ব আপনার গাড়ির সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিবে সেফটি জিপিএস ট্র্যাকার

আপনার গাড়ির সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিবে সেফটি জিপিএস ট্র্যাকার

জিপিএস আধুনিক যুগের জীবন পাল্টে দেওয়ার মত প্রযুক্তি গুলোর ভেতর একটি । আমরা সবাই কম বেশি জিপিএসের সাথে পরিচিত। জিপিএস ট্র্যাকিংএর মাধ্যমে আপনি সহজেই আপনার গাড়ির লোকেশন থেকে শুরু করে যাবতীয় তথ্য মুঠো ফোন অথবা কম্পিউটারের মাধ্যমে জানতে পারবেন। আছে ভয়েস ট্র্যাকিং সুবিধা, যার মাধ্যমে আপনি শুনতে পারবেন গাড়ির ভেতরের সব কথা বার্তা।

বর্তমানে বাংলাদেশের অন্যতম একটি কোম্পানি ‘সেফটি জিপিএস ট্র্যাকার’ । এই কোম্পানির এমন কিছু অত্যাধুনিক পণ্য রয়েছে যা দিয়ে আপনি সব কিছু রাখতে পারবে আপনার হাতের মুঠোয় । এই কোম্পানির বিভিন্ন সেবার মধ্যে গাড়ি ট্র্যাকিং ডিভাইস সেবাটি অন্যতম। এই কোম্পানি তাদের গ্রাহকদের দিচ্ছে প্রিমিয়াম জিপিএস ডিভাইস এবং এই ডিভাইসে রয়েছে ৫০টি বেশী সুবিধা যা কিনা ১০০% কাজ করবে। আর এই সেফটি ডিভাইস কেনার পর পাচ্ছেন ৩ বছরের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি।

সেফটি জিপিএস ট্রাকার ব্যাবহারে সুবিধাঃ

১। লাইভ ট্র্যাকিং: লাইভ ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে আপনি ২৪ ঘণ্টা আপনার গাড়ির খোঁজ খবর নিতে পারবেন পারবেন। আমাদের অ্যাপ অথবা ওয়েব সাইটের মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন আপনার গাড়ির বর্তমান অবস্থান, ইঞ্জিন অফ নাকি অন, কত গতিতে চলছে, কোন রাস্তা দিয়ে যাচ্ছে ইত্যাদি।

২। লাইভ ভয়েস ট্র্যাকিং: আপনি আপনার মোবাইল ফোন থেকে যেকোনো সময় গাড়ির ভেতরে কি কথা হচ্ছে জানতে পারবেন।

৩। ইঞ্জিন লক: চুরি কিংবা যেকোনো দুর্ঘটনা ঘটলে আপনি আপনার মোবাইল ফোন থেকে গাড়ি সহজেই অফ করে দিতে পারবেন।

৪। ইঞ্জিন অন/অফ নোটিফিকেশন: এই অপশনে মাধ্যমে আপনি যেকোনো সময় আপনার গাড়ির ইঞ্জিন অন এবং অফ করার নোটিফিকেশন পাবেন আপনার মোবাইল অথবা পিসি থেকে।

৫। স্পিড ভায়োলেশন এলার্ট: আপনার গাড়ির ড্রাইভার যদি আপনার সেট করে দেওয়া গতি থেকে বেশী গতিতে গাড়ি চালায় তাহলে আপনি সাথে সাথে এলার্ট পাবেন।

৬। সারাদিনের মাইলেজ রিপোর্ট: এর মাধ্যমে আপনি সারাদিন আপনার গাড়ি কোথায় কোথায় গিয়েছে কত কিলোমিটার চলেছে দেখেতে পারবেন। এমনকি ইচ্ছা করলে এই রিপোর্ট আপনি ১ মাস পরেও দেখতে পারবেন।

৭। জিওফেন্স: এই অপশনের মাধ্যমে আপনি আপনার বাসা, অফিস অথবা নির্দিষ্ট এলাকা অথবা গন্তব্য সেট করতে পারবেন, সেই সেট করা এলাকা থেকে গাড়ি বের হলে অথবা ওই এলাকায় গাড়ি প্রবেশ করলে আপনি সাথে সাথে নোটিফিকেশন পাবেন।

৮। মেইন্টেনেন্স অ্যালার্ট: এর মাধ্যমে আপনি আপনার গাড়ির মেইন্টেনেন্স নোটিফিকেশন পাবেন।

৯। এক্সিডেন্ট নোটিফিকেশন: যদি আপনার গাড়ি হঠাৎ কোন দুর্ঘটনার কবলে পরে তাহলে আপনি সাথে সাথে আপনার মোবাইল ফোনে নোটিফিকেশন পাবেন।

৭।  হিস্টরিঃ ১ বছর পর্যন্ত আপনি আপনার গাড়ির সমস্ত রিপোর্ট আমাদের সার্ভারে জমা থাকবে। আপনি ইচ্ছা করলে যেকোনো সময় কবে কোথায় গাড়ি গিয়েছিল দেখতে পারবেন।

৮। গন্তব্যে পৌছার নোটিফিকেশন: এর মাধ্যমে আপনি আপনার সেটা করা গন্তব্যে গাড়ি পৌঁছানোর সাথে সাথে নোটিফিকেশন পাবেন।

১১। ডিভাইস কাট নোটিফিকেশন: যদি কেও আপনার গাড়ির ডিভাইস খোলার চেষ্টা করে তাহলে সাথে সাথে আপনি নোটিফিকেশন পাবেন।

১৪। কম্পিউটার/ অ্যান্ড্রয়েড/ আইওএস অ্যাপ: আপনি আমাদের ট্র্যাকিং সিস্টেম আপনার কম্পিউটার, অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল অথবা আইওএস থেকে ব্যাবহার করতে পারবেন।

১৫। ফ্লিটঃ আপনি আপনার সব গাড়ি এক ইউজার থেকে নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন। এমনকি আপনি আপনার সব গাড়ির ডাটা অফিস ফাইলে ডাউনলোড করতে পারবেন।

১৬। রিপোর্টঃ আপনার গাড়ি রাস্তায় চলা অবস্থা কোথায় কত সময় গাড়ি থেমেছে কত সময় গাড়ির ইঞ্জিন অন ছিল ইত্যাদি দেখার সুবিধা।

১৭। তথ্য সংগ্রহঃ আমাদের সার্ভারে আপনি আপনার গাড়ির সব তথ্য সংগ্রহ করতে পারবেন এবং আলাদা আলাদা গাড়ির জন্য ড্রাইভারে নাম, মোবাইল নাম্বার সহ সব তথ্য সংগ্রহ করতে পারবেন।

এছাড়াও আপনি আরও ৩০+ সুবিধা পাবেন ।

অনন্য সুবিধাসমূহঃ

১। ২৪ ঘণ্টা কাস্টমার কেয়ার সুবিধা।

২। গাড়ি চুরি হলে বা হারালে উদ্ধারে রয়েছে আমাদের রিকভারি টিম।

৩। যেকোনো টেকনিক্যাল সমস্যা হলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সমধান।

৪। আমাদের প্রতিটি ডিভাইসে পাবেন ৩ বছরের রিপ্লেসমেন্ট সুবিধা।

৫। দক্ষ টেকনেশিয়ান দিয়ে ডিভাইস ইন্সটল।

৬। প্রিমিয়াম গুগল ম্যাপ এবং ১০০% সার্ভার আপটাইম।


যোগাযোগঃ
৬৬/৮ ইন্দিরা রোড, পশ্চিম রাজাবাজার, ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫
ফোনঃ ০১৭১৩-৫৪৬৩৮৬, ০১৭১৩-৫৪৬৪৮৭