বাড়ি রাজনীতি ‘একতরফা নির্বাচনের তফসিল জনগণ মানবে না’

‘একতরফা নির্বাচনের তফসিল জনগণ মানবে না’

বিএনপির মহাসচিব ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রাজনৈতিক দলগুলোর চলমান সংলাপ অসম্পন্ন রেখে ‘একতরফা নির্বাচনের জন্যই’ নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষণা করেছে। ‘জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষার পরিপন্থি এই তফসিল জনগণ গ্রহণ করবে না।’

বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক শেষে তফসিল নিয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এমন মন্তব্য করেন তিনি।

নির্বাচনে অংশ নেয়া না নেয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করতে বৈঠক শেষে তিনি বলেন, ‘সংলাপ অসম্পন্ন রেখে একতরফা নির্বাচনের জন্য তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। এই তফসিল পিছিয়ে দেয়ার কথা ছিলো।’

একতরফাভাবে আবার একটি নির্বাচন করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এই তফসিল ঘোষণার মধ্য দিয়ে সরকারের আরও একটি ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটতে যাচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা নির্বাচন কমিশনের কাছে গিয়েছিলাম। আপনারা অবগত আছেন, আমরা স্পষ্টত জানিয়েছি তফসিল পিছিয়ে দেয়ার জন্য। কিন্তু তারা পিছিয়ে দেননি।’

শরিক লিবারেল ডেমোক্রিটিক পার্টির চেয়ারম্যান কর্নেল ড. অলি আহমদ সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, জামায়াতের কর্মপরিষদ সদস্য মো: আব্দুল হালিম, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহীম, বিজেপির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দলিব রহমান পার্থ, জাগপার ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান, লেবার পার্টির মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ২৩ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে জানিয়ে বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা।

সিইসি বলেন, ‘একাদশ জাতীয় নির্বাচনের মনোনয়ন দাখিলের শেষ তারিখ ১৯ নভেম্বর, মনোনয়ন যাচাই-বাছায়ের শেষ তারিখ ২২ নভেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৯ নভেম্বর ও নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ২৩ ডিসেম্বর।’