বাড়ি রাজনীতি খালেদা জিয়ার শুনানি শেষে যে সিদ্ধান্ত নিল আদালত

খালেদা জিয়ার শুনানি শেষে যে সিদ্ধান্ত নিল আদালত

আজ বুধবার ২৮ নভেম্বর হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেনের আবেদনে সাড়া দেয়নি সর্বোচ্চ আদালত। এদিকে বিএনপির নেতার আবেদনে শুনানি করে সাত বিচারকের আপিল বেঞ্চ ‘নো অর্ডার’ দিয়েছে। তাছাড়া দুই বছরের বেশি দণ্ডিতদের ভোটে আসার সুযোগ দিল না আপিল বিভাগও।

এদিকে গতকাল জাহিদসহ বিএনপির পাঁচ নেতার আবেদনের ওপর শুনানি করে হাইকোর্ট সিদ্ধান্ত দেয়, দণ্ড বাতিল বা স্থগিত না হলে এবং জামিন না মিললে ভোটে দাঁড়ানো যাবে না। এদিকে জাহিদের এই আবেদনেই আটকে গেল বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ভোটে আসার পথ।

এর কারণ তিনি এক মামলায় ১০ বছর এবং একটিতে সাত বছরের কারাদণ্ড পেয়েছেন। যদিও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে চেম্বার জজ আদালতে আবেদন করা হয়েছে। আর চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বিচারিক আদালতের দণ্ডের বিরুদ্ধে আপিল হয়েছে হাইকোর্টে।

সংবিধান অনুযায়ী নৈতিক স্খলনজনিত কারণে কারও দুই বছরের বেশি সাজা হলে তিনি ভোটে অযোগ্য হবেন। তবে এই বিধানটিতে অস্পষ্টতা ছিল। কিন্তু উচ্চ আদালত এবার বিষয়টি স্পষ্ট করে দিয়েছে যে, কেবল আপিল করেই ভোটে আসা যাবে না। দণ্ড স্থগিত হতে হবে।