প্রেমিকা আত্মহত্যার আধাঘন্টা পর প্রেমিকও চলে গেল…

কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। প্রেমঘটিত বিষয় পরিবার মেনে না নেওয়ায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।

ওই দুই শিক্ষার্থী হলেন, বিশ্ববিদ্যালয় ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র রোকনুজ্জামান ও মুমতা হেনা।

বৃহস্পতিবার রাতে আধা ঘন্টার ব্যবধানে পৃথক স্থানে ওই শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করে বলে জানা গেছে।

জানাযায়, কুষ্টিয়ার ঝিনাইদহ শহরে ঝিনুক টাওয়ারের পঞ্চমতলায় নিজ শয়নকক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের ছাত্রী মুমতা হেনা ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। এই খবর পেয়ে প্রেমিক একই বিভাগের ছাত্র ছাত্র রোকনুজ্জামান কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার মতি মিয়া রেলগেট এলাকায় পোড়াদহ থেকে গোয়ালনন্দগামী শাটল ট্রেনে কাটা পড়ে মারা যায়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান জানান, দুজনের মধ্যে চেনাজানা ছিল। তবে কী কারণে তাঁরা আত্মহত্যা করেছেন, তা জানা যায়নি। রোকনুজ্জামানের বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা এলাকায় এবং মুমতা হেনার বাড়ি সাতক্ষীরা জেলায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ এমদাদুল হক জানান, মেয়েটির আত্মহত্যার বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

পোড়াদহ রেলওয়ে (জিআরপি) থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আসাদুজ্জামান জানান, রোকনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পরিবারের সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।